বিল গেটসের ভবিষ্যদ্বাণী: এক সপ্তাহের কাজ ৩ দিনে করে দেবে এআই

বিল গেটসের ভবিষ্যদ্বাণী: এক সপ্তাহের কাজ ৩ দিনে করে দেবে এআই

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে বিশ্বের নানা প্রান্তে চলছে তর্ক-বিতর্ক। কেউ কেউ মনে করেন এআই-এর ক্ষমতা যত বাড়বে তত বেশি কাজ হারাবে মানুষ। সভ্যতা পড়বে চ্যালেঞ্জের মুখে। যদিও মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা তথা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্টেশনের মালিক, বিল গেটস অন্য মত পোষণ করেন। তিনি মনে করেন প্রযুক্তি মানুষকে প্রতিস্থাপন করবে না, তবে এআই এলে সপ্তাহে ৩ দিন কাজ করতে হবে।

বিলিয়নেয়ার তার পডকাস্ট ‘হোয়াট নাউ’-এ দক্ষিণ আফ্রিকার কৌতুক অভিনেতা এবং লেখক ট্রেভর নোয়াহের সাথে কথা বলার সময় তার মতামত ভাগ করেছেন। ৬৮ বছর বয়সী মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বলেছেন যে ”এআই চাকরি খাবে না তবে এটি চিরতরে কর্মসংস্কৃতির পরিবর্তন ঘটাবে।” ৪৫ মিনিটের কথোপকথনে, বিলিয়নেয়ার কীভাবে এআই এবং প্রযুক্তি জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে পারে সে সম্পর্কে কথা বলেছেন।

নোয়াহ যখন চাকরির জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার হুমকি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, গেটসের উত্তর ছিলো” একদিন এমন একটি সময় আসতে পারে যখন মানুষকে অত পরিশ্রম করতে হবে না। আপনি যদি শেষ পর্যন্ত এমন একটি সোসাইটি পান যেখানে আপনাকে সপ্তাহে মাত্র তিন দিন কাজ করতে হয়, তাহলে ক্ষতি কি ?”তিনি এমনকি বলেছিলেন যে এমন একটি বিশ্ব গড়ে উঠতে পারে যেখানে মেশিনগুলি সমস্ত খাবার এবং জিনিসপত্র তৈরি করে দেবে। বিলিয়নেয়ার তার আগের সাক্ষাৎকার এবং ব্লগগুলিতে এআই -এর ঝুঁকি এবং সুবিধা উভয়ই তুলে ধরেছেন। জুলাই মাসে, তিনি এআই- এর ঝুঁকির কথা বলেছিলেন।

গেটস সেইসময়ে বলেছিলেন-”আমি মনে করি না এআই- এর প্রভাব শিল্প বিপ্লবের মতো নাটকীয় হবে, তবে এটি অবশ্যই পিসির প্রবর্তনের মতো বড় হবে। ওয়ার্ড প্রসেসিং অ্যাপ্লিকেশনগুলি অফিসের কাজকে দূরে সরিয়ে দেয়নি, তবে তারা এটিতে চিরতরে পরিবর্তন করেছে।

নিয়োগকর্তা এবং কর্মচারীদের এটি মানিয়ে নিতে হয়েছিল, এবং তারা তা করেছিল।”

তিনি এআই- এর ঝুঁকিগুলিও উল্লেখ করেছেন, যার মধ্যে রয়েছে “ভুল তথ্য এবং ডিপফেকস, নিরাপত্তা হুমকি, চাকরির বাজারে পরিবর্তন এবং শিক্ষার উপর প্রভাব।”

সূত্র : এনডিটিভি

Related Articles