তৃণমূল প্রার্থীর খোঁজে পটিয়ার স্থানীয় ভোটাররা ; বাছাইয়ে বাদ ৩ প্রার্থী

তৃণমূল প্রার্থীর খোঁজে পটিয়ার স্থানীয় ভোটাররা ; বাছাইয়ে বাদ ৩ প্রার্থী

পটিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : মনোনয়ন পত্র বাছাইয়ে উতরে গেলেও পটিয়া আসনে তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী রাজীব চৌধুরীকে চিনেন না স্থানীয় ভোটাররা।

গতকাল চট্টগ্রাম-১২ পটিয়া আসনে ১০ প্রার্থীর ৪ জনের মনোনয়ন বাতির করেছে রিটার্নিং অফিসার। এই খবর নিশ্চিত করেছেন সহকারি রিটার্নিং অফিসার ও পটিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল মামুন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার আরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন, পটিয়া আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হুইপ সামশুল হক চৌধুরী, জাপা প্রার্থী নুরুচ্ছফা সরকারসহ ৬ জনের মনোনয়ন পত্র গৃহীত হয়েছে।

বাদ যাওয়া ৩ প্রার্থী হলেন বাংলাদেশ কংগ্রেস এর প্রার্থী জয়নুল আবেদীন এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের প্রার্থী এয়াকুব আলী এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া।

এয়াকুব প্রতিটি নির্বাচনে প্রার্থী হন এবং বার বার ঋণ খেলাপির দায়ে তার মনোনয়ন বাতিল হয়। গত একাদশ জাতীয় নির্বাচনে এলডিপির প্রার্থী ছিলেন। বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী জয়নাল আবেদীনকে এলাকাবাসী চিনেন না। পটিয়ার প্রত্যন্ত অ ল মালিয়ারার মো: আবুল কালামের পুত্র ফকির পাড়া এতিমখানার শিক্ষক।

পটিয়া আসনে তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী রাজীব চৌধুরীকে চিনেন না স্থানীয় ভোটাররা। কেউ তার নাম ঠিকানা প্রার্থী হওয়ার আগে এবং পরে শোনেননি। স্থানীয় সাংবাদিকরাও এর আগে চিনতেন না তৃণমূলের প্রার্থী রাজীব চৌধুরীকে। নির্বাচন অফিস থেকে প্রার্থীদের নাম ঠিকানা জানতে গিয়ে জানা যায় রাজীব চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার মেখল গ্রামে। ঢাকার ৮৭/৩ বড় মগবাজারে থাকেন।

রাজনীতিতে কখনো জড়িত ছিলেন কীনা জানার চেষ্টা করা হয়। হাটহাজারীর সাংবাদিক মোহাম্মদ হোসেন জানিয়েছেন, রাজীব চৌধুরীর বাড়ির ঠিকানায় গিয়ে দেখা যায় তাদের পরিবার বা সে কখনো রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলনা। স্থানীয় কেউ তাকে চিনেনা। ঢাকায় চাকরি করে বলে কেউ কেউ শুনেছেন।

Related Articles