বিজয়ী হলে পটিয়ার প্রশাসন হবে জনগণের আস্থার ঠিকানা; নির্বাচনী পথসভায় এম এ মতিন

বিজয়ী হলে পটিয়ার প্রশাসন হবে জনগণের আস্থার ঠিকানা; নির্বাচনী পথসভায় এম এ মতিন

বিশেষ সংবাদদাতা : বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের চেয়ারম্যান  এবং পটিয়া থেকে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী মাওলানা এম এ মতিন বলেছেন, পটিয়ায় মোমবাতি মার্কা বিজয়ী হলে প্রশাসন হবে জনগণের রাস্তার ঠিকানা, মানুষ ন্যায় বিচার পাবে, প্রশাসন দুর্নীতি ও ঘুষ পরিবেশে জনগণকে সেবা দিবে।

পটিয়া গৈড়লা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ শেষে মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন। নামাজ পরবর্তি মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে তার সংক্ষিপ্ত ভাষনে স্থানীয় জনসাধারণ সম্মুখে পটিয়াবাসীকে আশ্বস্ত করে তিনি  বলেন, যদি পটিয়া আসনে আপনারদের সার্বিক সহযোগিতা এবং ভোটের মাধ্যমে মোমবাতির বিজয় নিশ্চিত করতে পারি তাহলে পটিয়ার প্রশাসন হবে পুরো পটিয়ার সাধারণ সর্বস্তরের মানুষের আস্থার ঠিকানা।

তিনি আরও বলেন, ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ ও ন্যায়পরায়ণ প্রশাসন পরিচালনার জন্য একজন সৎ, নিষ্ঠাবান জনপ্রতিনিধির প্রয়োজন।

বিগত শাসকগোষ্ঠী তা বরাবরেই ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তিনি হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের সম অধিকার নিশ্চিত করবার আশর্^স্থ করেন। তিনি উপস্থিত মুসল্লিদের সম্মুখে তার পক্ষে দোয়া এবং মোমবাতির ভোট প্রার্থনা করে গৈড়লা, ধলঘাট, মুকুট নাইট সহ বিভিন্ন গ্রামের মোমবাতির প্রচারণা চালিয়ে ধলঘাট স্টেশন চত্বরে গিয়ে সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে প্রচারণা কার্যক্রম সমাপ্ত করেন।

এ সময় দলীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য জননেতা এম সোলায়মান ফরিদ, কেন্দ্রীয় নেতা মুহাম্মদ জসিম উদ্দীন, কেন্দ্রীয় যুবনেতা অধ্যাপক এমরান জাবেদ, যুবনেতা ইব্রাহীম খলিল, ইসলামী ফ্রন্ট জেলা নেতা হাফেজ গাজী মাওলানা মঞ্জুরুল করিম রেফায়ী, হাজী মুহাম্মদ আলী হোসাইন, এম বেলাল উদ্দীন আলমদার, মাষ্টার মুহাম্মদ কমরুদ্দীন, ইসলামী ফ্রন্ট পটিয়া উপজেলা নেতা আখতার হোসাইন, মুহাম্মদ মফিজুর রহমান, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, যুবনেতা আইয়ুব আলী মিজান, ছাত্রনেতা ডাঃ আলমগীর হোসাইন, জুনাইদুল ইসলাম প্রমুখ।

 

Related Articles