স্বতন্ত্র প্রার্থীর মামলা :পটিয়ায় জামিন পেলেন ১১জন আওয়ামী লীগ নেতা

স্বতন্ত্র প্রার্থীর মামলা :পটিয়ায় জামিন পেলেন ১১জন আওয়ামী লীগ নেতা

পটিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা :  জেলার পটিয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভাই মুজিবুল হক চৌধুরী নবাব এর মামলায় জামিন পেয়েছেন আওয়ামী লীগের ১১ নেতা-কর্মী।

গত ৩১ জানুয়ারি সামশুল হক চৌধুরীর গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ আরো ১১জন বিবাদী আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন।

তারা হলেন- পটিয়া উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকারিযা ডালিম (৪৭), মো: হোসাইন রানা (৪৫), খোরশেদ আলম প্রকাশ খোরশেদ মেম্বার (৪০), এমরান উদ্দিন মনা (৪৪), আবদুল কাদের (২৮), ডিএম জমির উদ্দিন (৪৩), জসিম উদ্দিন (৪৮), মেজবাহ উদ্দিন ফয়সাল (২৭), মো. আরশেদ (৩০), জানে আলম (২৭), লোকমান (৪০)।

বুধবার সকালে পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তাররাহুম আহমদের আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। এর আগেরদিন গ্রেফতার হওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য প্রজ্ঞা জোৎতি বড়ুয়া লিটন (৪৫) ও মাহমুদুল হাসান মিসবাহ (২৬) চট্টগ্রামের একটি আদালত জামিন নেন।

চট্টগ্রাম মহানগর আদালতের পিপি এডভোকেট আবদুর রশিদ, এডভোকেট হোসাইন মো: মুরিদুল আলম, এডভোকেট গোলাম মওলানা মুরাদ, এডভোকেট রিক্তা বড়ুয়া ও এডভোকেট বড়ুয়া বিবাদীদের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন।

বিবাদীরা জামিন পাওয়ার পটিয়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গোফরান রানা তাদেরকে ফুল দিয়ে সংবর্ধিত করেন।

এসময় দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ডক্টর জুলকারনাইন চৌধুরী জীবন, পটিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি নুর আলম সিদ্দিকী, কাজী মো: মোরশেদ, যুবলীগ নেতা শেখ বেলাল, নজরুল ইসলাম, ইউসুফ খাঁন।

চট্টগ্রাম মহানগর আদালতের পিপি এডভোকেট আবদুর রশিদ জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী সামশুল হক চৌধুরী দলীয় প্রতীক না পাওয়ার কারণে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন।

তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছেন। সামশুল হক চৌধুরী একসময় যুবদল, জাতীয় পার্টি ও পরবর্তীতে আওয়ামী লীগে ঢুকে ১৫ বছর এমপি থাকলেও দলীয় নেতাকর্মীদের কোনভাবে মূল্যায়ন করেননি।

অথচ একের পর এক ত্যাগী নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী  ৪টি মামলা করেছেন দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী জামিন পাওয়া নেতাদের সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারি যে ভোট অনুষ্ঠিত হবে ব্যালেটের মাধ্যমে নৌকাকে বিজয়ী করে এর জবাব দিতে হবে।

Related Articles