নেপথ্যে মোটা আমিন! পটিয়ায় ২০ লক্ষ টাকার ৮ শত ফুট সেগুন কাঠ উদ্ধার

নেপথ্যে মোটা আমিন! পটিয়ায় ২০ লক্ষ টাকার ৮ শত ফুট সেগুন কাঠ উদ্ধার

পটিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের পটিয়ায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বন বিভাগ ও পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে আনুমানিক ২০ লক্ষ টাকার ৮ শত ঘনফুট সেগুন কাঠ উদ্ধার করেছে।

বুধবার ৬ মার্চ সকাল ১১ টায় পাহাড়ি এলাকায় সরকারি বনাঞ্চল থেকে মূল্যবান সেগুন কাঠ কেটে ট্রাকযোগে পাচার করার সময় হাইদগাঁও ভাঙ্গাপোল ও কেলিশহর সেনপাড়া থেকে এই কাঠ উদ্ধার করা হয়। পাচারকারীরা পালিয়ে গেলেও বন বিভাগ ট্রাক ও কাঠ উদ্ধার করে।

রেঞ্জ অফিসার নুরুল আলম হাফিজ জানিয়েছেন, কাঠগুলোর মালিকানা কেউ দাবী করেনি বলে কারো বিরুদ্ধে মামলা করা যায়নি। তবে জব্দ মামলা হয়েছে।  এলাকার লোকজন জানিয়েছেন, এই কাঠগুলো বন খেকো আমিন প্রকাশ মোটা আমিনের। সে আন্ত:জেলা কাঠ পাচারকারীদের অন্যতম প্রধান। গণমাধ্যম কর্মীদের নিকট সে কাঠগুলো তার নয় বলে দাবি করেছে।

উল্লেখ্য মোটা আমিন ও তার ৩ ভাই কাঠ পাচার ছাড়াও চট্টগ্রাম -কক্সবাজার মহাসড়কের কমল মুন্সীর হাটসহ বিভিন্ন এলাকায় পরিবহন থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করে থাকে।

তাদের এই চাঁদাবাজিতে তারা পুলিশের নাম ব্যবহার করায় গাড়ি চালকরা ভয়ে তাদের চাঁদা দিতে বাধ্য হয়।

পুলিশ কাউকে চাঁদা তোলার দায়িত্ব দেয়নি বলে জানিয়েছেন পটিয়া থানার ওসি জসিম উদ্দিন।  তবে পুলিশ কেন আমিন ও তার ভাইদের আটক করছে না তা রহস্যাবৃত।

কাঠ পাচার বন্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে বলে রেঞ্জ অফিসার নুরুল আলম হাফিজ জানিয়েছেন।

 

Related Articles