পুলিশের ঝটিকা অভিযান ; পটিয়ায় চোরাইকৃত ১১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার, গ্রেফতার-৮

পুলিশের ঝটিকা অভিযান ; পটিয়ায় চোরাইকৃত ১১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার, গ্রেফতার-৮

পটিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : পটিয়া থানা পুলিশ ঝটিকা অভিযান চালিয়ে পটিয়া থেকে চুরি যাওয়া ১১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার এবং চোর চক্রের প্রধানসহ ৮ জনকে আটক করেছে।

পটিয়া থানার ওসি জসিম উদ্দিন আজ বৃহস্পতিবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন, বিগত বেশকিছু দিন থেকে পটিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে মোটর সাইকেল চুরি হচ্ছিল। বিষয়টি মনিটর করা হয় এবং গতকাল উপজেলা ও জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে চোর চক্রের প্রধান পটিয়ার হুলাইন থেকে হুমায়ন কবির প্রকাশ শরীফ প্রকাশ রাসেল প্রকাশ বাঁচাকে (৩২) আটক করে। পরে তার ভাগ্না মো: সাকিব (২৪) কে জেলার হাটহাজারী থেকে আটক করে। মামা-ভাগ্না মিলে দীর্ঘদিন মোটর সাইকেল চুরি করে সেগুলো ৩০/৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে আসছিল। সাকিব মোটর সাইকেল চুরির অভিযোগে জেলে আটক ছিল। গতমাসে জেল থেকে বের হয়ে আবারো মোটর সাইকেল চুরি শুরু করে।
পটিয়া থানার ওসি জানিয়েছেন, বুধবার আন্ত: জেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের একটি সিন্ডিকেটকে জেলার বিভিন্ন থানা, কক্সবাজার জেলার চকরিয়া ও রামু থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৮ সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করেন।

আটক অন্যরা হলো পটিয়ার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের খোরশেদ আলম (২৭), ভাটিখাইন ইউনিয়নের মেহেদী হাসান (২৪), চকরিয়া উপজেলার মো. আলমগীর প্রকাশ বাবলু (২৬), চকরিয়া উপজেলার শাহাদাত হোসেন প্রকাশ পুতু (২৫), মো. মিরাজ (২৬), মো. হানিফ (২৭)। তাদের স্বীকারোক্তি মতে পুলিশ উদ্ধার করেছে ১১টি চোরাই মোটরসাইকেল ও চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি মাস্টার ‘কী’। যে কোন মোটর সাইকেল মাত্র ২০/৩০ সেকেন্ডের মধ্যে তারা এই চাবি দিয়ে খুলে ফেলতে সক্ষম।

চাবি তৈরির কারিগরকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন,ওসি তদন্ত সাইফুল সাইফুল ইসলাম।

এ ঘটনায় পটিয়া থানায় একটি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। জেলার অন্যান্য থানাও মোটর সাইকেল চুরির অভিযোগে তাদের আটক দেখানো হবে জানিয়েছেন ওসি জসিম উদ্দীন। তিনি বলেন অভিযান চলমান রাখা হবে । #

 

Related Articles